GK Dutta – Official Website

মানবাধিকার হ’ল সকল মানুষের অবিচ্ছেদ্য অধিকার, তাদের জাতীয়তা, বাসস্থান, লিঙ্গ, জাতীয় বা জাতিগত উত্স, বর্ণ, ধর্ম, ভাষা বা অন্য যে কোনও পদবি নির্বিশেষে। আমরা সকলেই বৈষম্য ছাড়াই আমাদের মানবাধিকারের সমান অধিকারী। এই অধিকারগুলি সমস্ত আন্তঃসম্পর্কিত, পারস্পরিক নির্ভরশীল এবং অবিভাজ্য। মানবাধিকার সুরক্ষা আইন, ১৯৯৩ হ’ল একটি আইন, যা মানবাধিকারের সুরক্ষার জন্য এবং এর সাথে যুক্ত বা ঘটনাক্রমে সম্পর্কিত বিষয়গুলির জন্য একটি জাতীয় মানবাধিকার কমিশন, রাজ্যগুলিতে রাজ্য মানবাধিকার কমিশন এবং মানবাধিকার আদালত গঠনের বিধান দিয়েছে। মানবাধিকার সুরক্ষা আইন, ১৯৯৩, আইন বা অধিকার বা ব্যক্তি বা গোষ্ঠীর মৌলিক স্বাধীনতা প্রচার ও সুরক্ষার জন্য নির্দিষ্ট কিছু উপায়ে কাজ করা বা কিছু আইন থেকে বিরত থাকার জন্য সরকারের বাধ্যবাধকতা রক্ষা করে।

মানবাধিকার সুরক্ষা আইন, ১৯৯৩ এর ধারা ২-এর শর্তাবলী – “মানবাধিকার” অর্থ সংবিধান দ্বারা গ্যারান্টিযুক্ত বা আন্তর্জাতিক চুক্তিতে স্বীকৃত এবং আদালত দ্বারা কার্যকরযোগ্য ব্যক্তির জীবন, স্বাধীনতা, সাম্যতা এবং মর্যাদা সম্পর্কিত অধিকার।

মানবাধিকার আইন ১৯৯৩ এর সুরক্ষার মূল লক্ষ্য হ’ল মানুষের অধিকার লঙ্ঘন থেকে রক্ষা করা। মানবাধিকার ব্যতীত জীবন হয় না বা অর্থহীন জীবন হয়। সংবিধান দ্বারা গ্যারান্টিযুক্ত জীবন, স্বাধীনতা সমতা এবং মর্যাদার সাথে সম্পর্কিত অধিকারগুলিও “মানবাধিকার” বিভাগে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। মানবাধিকার হ’ল সমস্ত মানুষের অধিকার এবং স্বাধীনতা। মানবাধিকারকে এরূপ সুরক্ষিত করার উদ্দেশ্য হ’ল জীবিত অবস্থায় জীবের উন্নতি এবং তাদের ব্যক্তিত্বের বিকাশের জন্য এবং একই সাথে সরবরাহ করার জন্য রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠানের অঙ্গীকার দ্বারা পরিচালিত ক্ষমতার অপব্যবহারের বিরুদ্ধে এই অধিকারগুলিকে সুরক্ষা প্রদান করা, এই অধিকারগুলির লঙ্ঘন হওয়ার ক্ষেত্রে প্রতিকার পাওয়ার জন্য কার্যকর প্রতিকারমূলক পদক্ষেপগুলি। এই আইনে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন, রাজ্য মানবাধিকার কমিশন এবং মানবাধিকার আদালত প্রতিষ্ঠার বিধান রয়েছে যা মানবাধিকার লঙ্ঘনের যে কোনও গুরুতর লঙ্ঘন রোধ ও শাস্তি রোধ করবে।

পুলিশ প্রশাসনের কার্যপ্রনালীর ক্ষেত্রেঃ
১. পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থতা।
২. বেআইনী আটক।
৩. মিথ্যা মামলায় জড়িত করা
৪. অবৈধ গ্রেপ্তার।
৫. রীতিনীতি লঙ্ঘন, ইত্যাদি।

অন্যান্য পুলিশী কার্যকলাপঃ
১. কাস্টোডিয়াল মৃত্যু
২. এনকাউন্টার
৩. এসসি ও এসটি-র উপর অত্যাচার
৪. শিশুশ্রম
৫. যৌতুকের দাবি
৬. অপহরণ, ধর্ষণ এবং হত্যা
৭. যৌন হয়রানি এবং মহিলাদের প্রতি অসন্মান
৮. মহিলাদের শোষণ, ইত্যাদি।

www.mersinlife.org - www.mersinbakliyat.com - www.escort-izmir.org - www.samsuni.net - www.ankara-escort.asia - www.amasyaescort.org - www.istanbulbescort.com - www.izmir-eskort.org - www.eskisehires.com - www.tiktakmersin.com
Open chat
1
Hi! We're here to answer any questions you may have.